বার্তা পরিবেশক, অনলাইন :: করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে আনসার বাহিনীর মো. আব্দুস সোবহান নামে আরও এক সদস্যের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে বাহিনীটির দুই সদস্য মারা গেলেন।
সোমবার (৮ জুন) দুপুরে বগুড়ার মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন আব্দুস সোবহান।
তার বাড়ি বগুড়া জেলার সোনাতলা উপজেলার উত্তর কালাইহাট গ্রামে। বাবার নাম মরহুম মোবারক। তিনি ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কর্মরত ছিলেন।

আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর উপ-পরিচালক (যোগাযোগ) মেহেনাজ তাবাসসুম রেবিন জানান, গত ২২ মে ওই সদস্য করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বগুড়ার মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে ভর্তি হন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি আজ দুপুরে মৃত্যুবরণ করেন। এই নিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আনসার বাহিনীর মোট দুই সদস্য প্রাণ হারালেন।
বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল কাজী শরীফ কায়কোবাদের নির্দেশে সরকারি নির্দেশনা অনুসরণ করে মৃত আব্দুস সোবহানকে তার গ্রামের বাড়িতে দাফন করা হয়।

মহাপরিচালকের পক্ষে বগুড়ার জেলা কমান্ড্যান্ট মুহাম্মাদ মেহেদী হাসান স্বাস্থ্য অধিদফতরের বিধি মেনে আব্দুস সোবহানের দাফন কাজ সম্পন্ন করেন।
মেহেনাজ তাবাসসুম রেবিন আরও জানান, সোমবার (৮ জুন) বিকেল ৫টা পর্যন্ত বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মোট ৪১৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং সুস্থ হয়েছেন মোট ২৪২ জন। সুস্থতার হার ৫৭ শতাংশ।
এর আগে, গত ১১ মে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আব্দুল মজিদ নামে আনসার বাহিনীর প্রথম সদস্য মৃত্যুবরণ করেন। আব্দুল মজিদের বাড়িও বগুড়ায়। মৃত্যুর আগে তিনি গুলশান বিভাগের ভাটারা থানায় কর্মরত ছিলেন।