বার্তা পরিবেশক, অনলাইন :: বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি শহীদ জিয়াউর রহমানের স্মৃতি বিজড়িত বগুড়ার গাবতলী উপজেলায় দুটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ফলক থেকে জিয়াউর রহমানের নাম পরিবর্তন করার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বগুড়া জেলা বিএনপি।
জেলা বিএনপির এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, গাবতলী উপজেলার বাগবাড়ী গ্রামে ১৯৯৫ সালে গাবতলী শহীদ জিয়া উচ্চ বিদ্যালয় এবং ২০০১ সালে একই উপজেলায় সুখানপুকুর শহীদ জিয়াউর রহমান বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় স্থাপতি হয়। দীর্ঘদিন যাবৎ বিদ্যালয় দুটি শহীদ জিয়াউর রহমানের নামে পরিচালিত হয়ে আসছে। কিন্তু সম্প্রতি রাজনৈতিক প্রতিহিংসাপরায়ন হয়ে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে জিয়ার নাম জনগনের মন থেকে মুছে ফেলতে এ হিংসাত্মক কাজ করা হয়েছে। গাবতলী শহীদ জিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে গাবতলী পূর্বপাড়া উচ্চ বিদ্যালয় রাখা হয়েছে। সুখানপুকুর শহীদ জিয়াউর রহমান বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে সুখানপুকুর বন্দর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়।
বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, ফলকে নাম পরিবর্তন করে জনগনের হৃদয় থেকে জিয়াকে মুছে ফেলা যাবে না। জিয়া তার কাজের মাধ্যমে চিরদিন বেচে থাকবেন। নেতৃবৃন্দ উক্ত দুটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ফলকে জিয়ার নাম পুন্ঃস্থাপনের জোর দাবি জানান।

বিবৃতিদাতারা হলেন, জেলা বিএনপির আহবায়ক ও সদর আসনের সংসদ সদস্য গোলাম মোহাম্মাদ সিরাজ, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও পৌরসভার মেয়র অ্যাডভোকেট একেএম মাহবুবর রহমান ও সাবেক এমপি হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক অ্যাডভোকেট একেএম সাইফুল ইসলাম ও ফজলূল বারী তালুকদার বেলালসহ যুবদল, ছাত্রদল , স্বেচ্ছাসেবকদল , শ্রমিকদল ,কৃষকদল, মহিলা দল নেতৃবৃন্দ।