বরিশালে পেট জোড়া লাগানো যমজ সন্তানের জন্মগ্রহণ

বরিশালের গৌরনদী উপজেলার একটি বেসরকারি ক্লিনিকে পেটে জোড়া লাগানো যমজ কন্যা শিশু জন্মগ্রহণ করেছে। তবে তাদের হাত, পা, মুখ ও মাথা আলাদা ও স্বাভাবিক রয়েছে। গতকাল বুধবার (২ জুন) বেলা ১২টায় স্থানীয় ময়ূরী ক্লিনিকের চিকিৎসক তানজিদ রহমান অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে জোড়া লাগানো যমজ শিশু ভূমিষ্ঠ করান। বিকেল ৩টা ৪০মিনিটে তাদের বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শিশুদের মা হালিমা বেগম সুস্থ রয়েছেন।

শেবাচিম হাসপাতালের নবজাতক ওয়ার্ডের দায়িত্বরত চিকিৎসক সৌরভ জানান, মাসহ নবজাতক দু’জনই সুস্থ রয়েছে। অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে জোড়া লাগানো শিশুদের আলাদা করতে হবে। তবে বরিশালে এ ধরনের অপারেশন হয় না এজন্য শিশু দুটিকে রাজধানী ঢাকায় নিতে হবে।

নবজাতকের পিতা আবু জাফর জানান, তাদের বাড়ি বরিশালের মুলাদী উপজেলার বাটামারা ইউনিয়নের সেলিমপুর গ্রামে। আর তার সংসারে আরও দুটি কন্যা সন্তান রয়েছে। জীবিকা নির্বাহের জন্য তিনি রাজধানীর পুরান ঢাকায় মুদি দোকান চালাতেন। কিন্তু করোনার কারণে ক্রেতা কমে যাওয়া এবং ক্রেতারা পাওনা টাকা পরিশোধ না করায় তার মুদি দোকান বন্ধ হয়ে যায়। বর্তমানে তিনি ঢাকায় ভ্যানগাড়ি চালান।

ভূমিষ্ঠ হওয়ার তার সন্তান দুটি বাঁচাতে হলে অপারেশন করতে হবে। এই অপারেশন ব্যয়বহুল। তার একার পক্ষে তা সম্ভব নয়। এজন্য সকলকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন আবু জাফর।’