বাবার মরদেহ বাড়িতে রেখে পরীক্ষা দিল মেয়ে

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল: বাবার মরদেহ বাড়িতে রেখে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে রায়পুর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের রিফা আক্তার নামের এক শিক্ষার্থী। বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) আনোয়ারা উপজেলার বটতলী শাহ মোহছেন আউলিয়া (রহ.) উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ইংরেজি ২য় পত্র পরীক্ষায় অংশ নেয় রিফা।

জানা গেছে, বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) রাতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান রিফার বাবা আহমেদ নবী। বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের দক্ষিণ পরুয়া পাড়ার রহিম তালুকদারের বাড়ির গ্রামে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়।

রফিকুল ইসলাম নামে এক প্রতিবেশি বলেন, সকাল ১১টায় রিফার বাবার জানাজার সময় নির্ধারণ করে স্বজনেরা। কিন্তু ১০টা থেকে রিফার এসএসসি পরীক্ষা ছিল। এ সময় আত্মীয়-স্বজন, সহপাঠী ও শিক্ষকরা তাকে সান্ত্বনা দিয়ে পরীক্ষাকেন্দ্রে পাঠায়। বেলা ১২টা ৩০ মিনিটের দিকে সে বাড়িতে ফিরে আসে।

বটতলী শাহ মোহছেন আউলিয়া (রহ.) উচ্চ বিদ্যালয়ের কেন্দ্র সচিব মো. ফরিদুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, কেন্দ্রে পরীক্ষা শুরু হওয়ার আগে এক শিক্ষার্থী আমার সঙ্গে যোগাযোগ করে। ওই শিক্ষার্থীর বাবা মারা গিয়েছে, জানাজা ১১টায়। তাই পরীক্ষায় অংশ নিয়ে বাড়িতে চলে যেতে চায়। তাকে বুঝানোর পর পরীক্ষা দেয়। পরে দেড় ঘন্টার মধ্যে লেখা শেষ করে। ওই শিক্ষার্থীর পরীক্ষা ভাল হয়েছে। আশা করি তার বাবার আশা পূরণ হবে।