আধিপত্যের দ্বন্দ্বে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ৩ ছাত্রলীগ কর্মী আহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল: বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় (ববি) ক্যাম্পাসে প্রভাব বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের এক নেতার অনুসারীদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় একজনকে কুপিয়ে জখম করা হয়। এছাড়া পাল্টা হামলায় আহত হয়েছেন আরো দুইজন। মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের সম্মুখে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে প্রক্টর ড.মোঃ আবদুল কাইয়ুম।

জানাগেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের কোন কমিটি না থাকলেও কয়েকটি পক্ষ সক্রিয় রয়েছে। এদের মধ্যে রিদম-আরাফাত গ্রুপ অন্যতম। রোববার ছিনতাই মামলায় এই গ্রুপের নেতা আবুল খায়ের আরাফাত কারাগারে প্রেরিত হন। এরপর থেকে নিজেদের মধ্যে নানা বিষয়ে বিতর্কের সূত্রপাত হয়।

যার প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার বেলা আড়াইটার দিকে অর্থনীতি বিভাগের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী আহনাফ তাহমিদকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করে দুর্বৃত্তরা। তাহমিদের ওপর হামলার ঘটনা পরবর্তীতে অন্তঃকোন্দলে রূপ নেয় এবং পাল্টা হামলায় অর্থনীতি বিভাগের ২০১৯ -২০ শিক্ষাবর্ষের মোঃ মারুফ শাহরিয়ার এবং কম্পিউটার ও প্রকৌশল বিজ্ঞান বিভাগের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের রিয়াতুল আজিমকে পিটিয়ে জখম করা হয়। আহত সকলে রিদম-আরাফাত গ্রুপের মোবাস্বির রিদমের অনুসারী।

এ ব্যাপারে গণিত বিভাগের শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগ নেতা মোবাস্বির রিদম বলেন, নিজেদের মধ্যে ভুল বুঝাবুঝির ফলে অনাকাঙ্ক্ষিত একটা ঘটনা ঘটেছে। বিষয়টি বড় কোন কিছু নয়। আর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মোঃ আবদুল কাইয়ুম বলেন, আহতদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিস্থিতি শান্ত আছে।

প্রসঙ্গত, গতবছর ৫ই আগস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের অপর ছাত্রলীগ নেতা অমিত হাসান রক্তিমের গ্রুপের ওপর হামলা চালায় রিদম-আরাফাত গ্রুপের সদস্যরা। ওই ঘটনার পর থেকেই ক্যাম্পাসে প্রভাবশালী হিসেবে পরিচিত মোবাশ্বের রিদমের অনুসারীরা। নিজেদেরকে বরিশাল সিটি করপোরেশন মেয়র আবুল খায়ের আব্দুল্লাহর সমর্থনপুষ্ট ছাত্রলীগ দাবি করলেও বিশ্ববিদ্যালয়ে সংগঠনটির কোন কমিটি নেই।