নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল: দৌলতখানে মায়ের আঘাতে ১২ বছরের এক শিশু ছেলের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। রবিবার (২১ এপ্রিল) রাত অনুমানিক ১০টার সময় চরপাতা ইউনিয়নের লেজপাতা গ্রামের ২ নম্বর ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে। পরে বিষয়টি আত্মহত্যা বলে প্রচার করে পরিবার।

এ ঘটনায় মৃত রমজানের মা ফাতেমা বেগমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়েছে পুলিশ। দৌলতখান থানার ওসি সত্যরঞ্জন খাসকেল বলেন, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ভোলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পেলে জানা যাবে হত্য নাকি আত্মহত্যা।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, শিশু রমজানের বাবা ছায়েদ আলী একটি মামলায় জেল হাজতে আছেন। ওই শিশু নিজেদের পানের বরাজ থেকে পান বিক্রি করায় সম্প্রতি তাকে মারধর করেন মা ফাতেমা বেগম। গত রাতেও একই ঘটনায় রমজানকে মারধ করা হয়। এতে তার মৃত্যু হয়। পরে মায়ের চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসলে তার মা জানান, রমজান আত্মহত্যা করেছে।