বরিশাল: সপ্তাহ না পেরোতেই পিরোজপুরে আবারও এক স্কুলছাত্রীকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ধর্ষক রুবেল তালুকদার (২৫) কে গ্রামবাসী বৃহস্পতিবার রাতে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে ভান্ডারিয়া উপজেলার জুনিয়া গ্রামে। ধষর্ণের শিকার হওয়া স্কুলছাত্রীটি মঠবাড়িয়ার তুষখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। প্রাইভেট পড়ে বাড়ি ফেরার সময় তাকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে যায় রুবেল।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকালে মেয়েটি প্রাইভেট পড়ে বিদ্যালয় থেকে মঠবাড়িয়ার বুড়িরচর গ্রামে তার বাড়ি যাচ্ছিল। ফেরার পথে তুষখালী এলাকা থেকে রুবেল তালুকদার নামের এক যুবক মেয়েটিকে ব্যাটারি চালিত অটোতে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে পার্শ্ববর্তী ভান্ডারিয়া উপজেলার জুনিয়া গ্রামের এক বন্ধু উজ্জলের বাড়িতে নিয়ে আটকে রেখে ধর্ষণ করে। এরপর বিষয়টি টের পেয়ে স্থানীয়রা ধর্ষক রুবেলকে আটক করে থানা পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ এসে মেয়েটিকে উদ্ধার করে এবং রুবেলকে আটক করে।

আটক রুবেল তালুকদার মঠবাড়িয়ার ধানীসাফা ইউনিয়নের উদয়তারা বুড়িরচর গ্রামের ফারুক তালুকদারের ছেলে। পুলিশ ধর্ষণের শিকার মেয়েটিকে উদ্ধার করে বৃহস্পতিবার রাতে পিরোজপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

এ বিষয়ে ভান্ডারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান তালুকদার জানান, মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে রুবেলকে প্রধান আসামি করে থানায় মামলা করেছেন।’