বার্তা পরিবেশক, অনলাইন:: মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলায় একটি আবাসিক হোটেল থেকে তরুণীসহ মো. কাউসার আহম্মেদ (৩৫) নামের এক যুবলীগ নেতাকে আটক করেছে পুলিশ।বুধবার উপজেলার পাটুরিয়া ঘাটে পদ্মা রিভার-ভিউ আবাসিক হোটেলের তিন তলার ৩০৯ রুম থেকে তাদের আটক করা হয়।

কাউসার শিবালয় উপজেলার মহাদেবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সারাসিন গ্রামের লুৎফর রহমানের ছেলে।

শিবালয় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মিজানুর রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই হোটেলে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়েছে। ওই তরুণীর বক্তব্য শোনা হচ্ছে তার অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা নেওয়ার প্রস্তুতি চলছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে- যুবলীগ নেতা কাউসার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যেমে ওই তরুণীর সাথে সাত মাস আগে প্রেমের সর্ম্পক গড়ে উঠে। এ সর্ম্পকের জের ধরে তারা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জায়গায় দেখা করত। এর ধারাবাহিকতায় বুধবার রিভার-ভিউ হোটেলের তিন তলার ৩০৯ নম্বরটি ভাড়া নেন। সকাল থেকে একান্তভাবে সময় কাটানোর পর দুপুরের দিকে থানা পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই হোটেলে অভিযান চালিয়ে রুম থেকে তাদের আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। সে ব্যক্তিগত জীবনে বিবাহিত এবং তার স্ত্রী সন্তান সম্ভবা।

শিবালয় উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ বলেন, কাউসারে বিরুদ্ধে এলাকায় প্রতারণার নানা অভিযোগ রয়েছে। ইতিপূর্বে সে একাধিক বিয়ে করেছে বলে শুনেছি। ইউনিয়ন যুবলীগের পদ পাওয়ার আগে সে ছাত্রদল করত। এদের কারণে আজ ঐতিহ্যবাহী এ সংগঠনের দুর্নাম হচ্ছে।’