বরিশাল: বরিশাল সদর উপজেলা চরবাড়িয়া ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের মেম্বার ফিরোজ গাজীর বিরুদ্ধে গৃহবধুকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনায় গত বুধবার রাতে মেট্রোপলিটন কাউনিয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ ওই নারীর পরিবারের পক্ষ থেকে দায়ের করা হয়েছে। শহরের উপকণ্ঠ মহাবাজ এলাকার বাসিন্দা ফিরোজ গাজীর এই অপকর্ম ফাঁস হয়ে যাওয়ায় স্থানীয়ভাবে তোলপাড় অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে।’

যদিও তার বিরুদ্ধে এ ধরনের ঘটনা ঘটানোর একাধিক অভিযোগ রয়েছে। এলাকায় সর্বাধিক বিতর্কিত এই ব্যক্তি সম্প্রতিকালে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশ নিয়ে ওই ওয়ার্ডটি থেকে নির্বাচিত হন।’

সেই সময় তার বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের পাশাপাশি ভোট জালিয়াতির অভিযোগও ওঠে। একই সাথে তার নির্বাচনে অংশ নেয়া নিয়েও নানা প্রশ্ন জনমনে সৃষ্টি হয়।’

নগরের ৪ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা হয়ে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশ নিলেন? সেই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই ফের নারী ধর্ষণ করতে গিয়ে সৃষ্টি করলেন নয়া বিতর্ক।’

এখন বিষয়টি নিয়ে এলাকায় আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে ফিরোজ গাজী। সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাহাতাব উদ্দিন সুরুজের সহযোগী হিসেবে পরিচিত এই ফিরোজ গাজী নিজেকে ক্ষমতাসীন দলীয় লোক পরিচয় দিয়ে অপকর্ম করে যাচ্ছে।’

অবশ্য এতে সহযোগিতা পাওয়ায় প্রতিবারই তিনি পার পেয়ে যান। কিন্তু এবার কাউনিয়া থানার ওসি সেলিম রেজা বিষয়টি নিয়ে নড়েচরে বসায় বিপাকে পড়েছেন তিনি।’

অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করে ওসি সাংবাদিকদের জানান, লিখিত অভিযোগে একই ইউনিয়নে ৭ নং ওয়ার্ডের গৃহবধু দাবি করেন বুধবার সকাল ৮ টার দিকে ফিরোজ গাজী তার ঘরে প্রবেশ করে। এক পর্যায়ে তাকে হুমকি দিয়ে ফ্রিজে ইলিশ রক্ষিত রয়েছে বলে জাপটে ধরে ধর্ষণচেষ্টা চালায়।’

তখন গৃহবধু ডাক-চিৎকার দিলে এই লম্পট তাকে বেধরক মারধর করে গলায় থাকা স্বর্ণের চেইন ও নগদ ৪৮ হাজার টাকা নিয়ে যায়। এ ঘটনায় পুলিশের অভিব্যক্তি হচ্ছে, বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে। অভিযোগের সত্যতা মিললে ফিরোজ গাজীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা।’