২ ঘণ্টা আগের আপডেট রাত ২:৩৫ ; মঙ্গলবার ; ডিসেম্বর ৬, ২০২২
EN Download App
Youtube google+ twitter facebook
×

বাউফলে অস্ত্রসহ আটক মাতাল যুবককে নিয়ে চলছে নোংরা রাজনীতি!

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট
৬:৪৭ অপরাহ্ণ, মার্চ ৮, ২০১৮

পটুয়াখালীর বাউফলে আবুল বশার রনি (৩০) নামে এক মাদকাসক্ত মাতাল যুবককে গত বুধবার রামদাসহ গ্রেপ্তার করার ঘটনা নিয়েও উপজেলা আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের মধ্যে নোংরা রাজনীতি শুরু হয়েছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওই মাদকাসক্ত যুবকের বাসভবনে ব্যাপক ভাঙচুর ও আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে হামলা, ভাঙচুর, মানববন্ধন এবং আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন হয়েছে।

আবুল বশার রনির বাড়ি বাউফল পৌরসভার আট নম্বর ওয়ার্ডে। তিনি একজন চিহ্নিত মাদকসেবী ও মাতাল। তাঁর অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে তাঁর বাবা মো. জাহাঙ্গীর হোসেন গত বছর ভ্রাম্যমাণ আদালতের কাছে তাঁকে (আবুল বশার রনি) হাতে সোপর্দ করে দেয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী হাকিম ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জামান তাঁকে (আবুল বশার রনি) ৬ মাসের কারাদন্ড দিয়ে কারাগারে পাঠান।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে- গত বুধবার বিকেলে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কমিটির সভায় ওই যুবক ঢোকার চেষ্টা করে। এতে উপস্থিত পুলিশ সদস্যরা বাধা দেন। এরপরেও ঢোকার চেষ্টা করলে পুলিশ তাঁকে আটক করে তল্লাশি চালিয়ে একটি রামদা, দুই হাজার টাকা, ১০ গ্রাম গাঁজা ও একটি মুঠোফোন উদ্ধার করে। তখন পুলিশ তাঁকে গ্রেপ্তার করে। আর ওই সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- সরকারদলীয় চিফ হুইপ ও স্থানীয় সাংসদ আ স ম ফিরোজ।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওই দিন বিকেল পৌনে ৬টার দিকে চিফ হুইপের সমর্থকেরা আওয়ামী লীগের অপর পক্ষের উপজেলা সদরের কুন্ডুপট্টি এলাকায় বাউফল পৌরসভা শাখা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে মাইক ও আসবাব ভাঙচুর করে।

এর আগে গ্রেপ্তার হওয়া আবুল বশারের বাবার বাউফল পৌরসভার আট নম্বর ওয়ার্ডের তালাবদ্ধ বাসায় হামলা চালিয়ে দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে ব্যাপক ভাঙচুর করেছে। টিভি, ফ্রিজসহ ঘরের কোনো আসবাবই ভাঙচুরের হাত থেকে রক্ষা পায়নি। একই দিন বুধবার রাতে চিফ হুইপ আ স ম ফিরোজ তাঁর কালাইয়া বন্দরের বাসভবনে সংবাদ সম্মেলন করেছেন। ওই সময় তিনি বলেন,তাঁর ওপর হামলা করার উদ্দেশে ওই যুবক এসেছিল। তাঁর কাছে পৌঁছাবার আগেই পুলিশ তাঁকে আটক করেছে।

আর এ ঘটনার জন্য কারো নাম উল্লেখ না করে আওয়ামী লীগের একটি পক্ষকে দায়ী করেন। একপর্যায়ে তিনি বলেন, উপজেলা শিক্ষা কমিটির সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান ওই সভায় উপস্থিত থাকার কথা বললেও শেষ পর্যন্ত তিনি উপস্থিত হননি।

তিনিও এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকতে পারেন। ওই সময় তিনি উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মজিবুর রহমানকে মোনাফেক বলে আখ্যা দেন। ওই সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল মোতালেব হাওলাদার, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী
লীগের সহসভাপতি মোশারেফ হোসেন খান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইব্রাহিম ফারুক প্রমুখ।

এদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টার দিকে বাউফল পৌরসভা শাখা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে হামলা, ভাঙচুর ও চিফ হুইপের সংবাদ সম্মেলনে উপজেলা চেয়ারম্যানকে জড়িয়ে মনগড়া বক্তব্য দেওয়ার প্রতিবাদে বাউফল পৌরসভা শাখা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন আওয়ামী লীগের এক পক্ষ। সংবাদ সম্মেলনে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান দালিলিক প্রমাণ উপস্থাপন করে বলেন, চিফ হুইপ মহোদয় তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যা ও মনগড়া বক্তব্য দিয়েছেন।

৭ মার্চের (বুধবার) শিক্ষা কমিটির সভায় তিনি উপস্থিত থাকবেন না, এ কথা ৫ মার্চ লিখিতভাবে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) জানিয়ে তাঁকে (ইউএনও) সভাপতিত্ব করার জন্য অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। চিফ হুইপের সভায় রামদাসহ যুবকের ঢোকার সঙ্গে তাঁর জড়িত থাকার বিষয়ে চিফ হুইপের বক্তব্য প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন,‘তিনি ওই যুবককে চেনেন না। এমনকি কোনোদিন কোনোভাবে কথাও হয়নি।’

তিনি আরও বলেন, যতটুকু জেনেছি ওই যুবক মাদকাসক্ত, অনেকটা বিকারগ্রস্ত। এরপরেও কি কারণে রামদা নিয়ে ঢুকতে চেয়েছিল তা খতিয়ে দেখা উচিৎত। যদি চিফ হুইপ মহোদয়ের ওপর হামলার উদ্দেশেই ঢুকে থাকে তাহলে এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই। তাছাড়া ওই মাদকাসক্ত যুবক যাদের ছত্রছায়া চলে, যাদের সঙ্গে তাঁর যোগাযোগ তা প্রশাসনের লোকেরা জানে। কললিস্ট যাচাই করলেই সহজে বেরিয়ে আসবে। এ ঘটনা নিয়ে জজ মিয়া নাটক করার কোনো মানে নেই।’

ওই সময় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও কৃষক লীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এদিকে বৃহস্পতিবার বিকেলে চারটার দিকে বাউফল থানার সামনের সড়কে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের ব্যানারে চিফ হুইপ আ স ম ফিরোজের সভায় রামদা নিয়ে ঢোকার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে চিফ হুইপ সমর্থিত মুক্তিযোদ্ধা,স্কুল, কলেজের শিক্ষকসহ কয়েকশ নেতাকর্মী।

আবুল বশারের বাবা মো. জাহাঙ্গীর হোসেন মিয়া বলেন- ‘নিজের ছেলেকে নিজেই ধরিয়ে দিয়েছি। সাজা দিয়ে জেলে পাঠানো হয়েছিল। সাজা ভোগের পর মাদক নিরাময় কেন্দ্রে রেখেছি। তাতেও ভালো হয়নি। নিয়মিত মাদক সেবন করে, আর দা নিয়ে ঘুরে বেড়ায়। ওযে (আবুল বশার) মাতাল, তা এলাকার সবাই জানে।’ তিনি আরও বলেন,মাতাল হলেও চিফ হুইপ মহোদয়ের সভায় দা নিয়ে ঢুকে নিশ্চয়ই অপরাধ করেছে। সেই অপরাধে তাঁর তালাবদ্ধ বাসভবনের দরজা ভেঙে সব কিছু ভেঙে ফেলা হবে। এটা কেমন বিচার? দলীয় সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘ প্রায় পাঁচ বছর পর্যন্ত উপজেলা আওয়ামী লীগের মধ্যে বিরোধ চলছে।

এক পক্ষে আছেন চিফ হুইপ ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আ স ম ফিরোজ। অপর পক্ষে আছেন জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও বাউফল পৌরসভার মেয়র মো. জিয়াউল হক জুয়েল। নাম প্রকাশ না করার শর্তে সুশীল সমাজের এক নেতা বলেন,‘মাদকাসক্ত এক মাতালকে দিয়ে জজ মিয়া নাটক সাজিয়ে শান্ত বাউফলকে অশান্ত করার ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। বাউফলবাসী ভোট দেওয়ার সুযোগ পেলে এর সমুচীন জবাব দেবে।’

বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুল ইসলাম বরিশালটাইমসকে বলেন, ‘এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। আসামিও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। যেহেতু চিফ হুইপ মহোদয়ের সভায় দা নিয়ে ঢুকেছে। তাই বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখা হচ্ছে। আবুল বশার রনিকে রিমান্ডে এনে আসল ঘটনা উদঘাটন করা হবে।’

Other

 

আপনার মতামত লিখুন :

 
ভারপ্রাপ্ত-সম্পাদকঃ শাকিব বিপ্লব
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮ | বরিশালটাইমস.কম
বরিশালটাইমস মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
ইসরাফিল ভিলা (তৃতীয় তলা), ফলপট্টি রোড, বরিশাল ৮২০০।
ফোন: +৮৮০২৪৭৮৮৩০৫৪৫, মোবাইল: ০১৮৭৬৮৩৪৭৫৪
ই-মেইল: [email protected], [email protected]
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮
টপ
  ছাত্রলীগ ছেড়ে ছাত্রদলে তারা  পুলিশের সামনে থেকে তুলে নিয়ে যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা  শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে টাইব্রেকারে স্পেনকে হারিয়ে শেষ আটে মরক্কো  বিয়ের হুমকি দিলেন স্বামী: ২ সন্তানকে পুড়িয়ে মারলেন মা  লাখ টাকায় বিক্রি প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর!  স্বামীর টাকা ও স্বর্ণালঙ্কারসহ প্রেমিকার হাত ধরে উধাও স্ত্রী  আ.লীগ অফিস ভাঙচুর: গ্রেফতার আতঙ্কে বাড়িছাড়া বিএনপি নেতাকর্মীরা  ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হয়ে দায়িত্বভার নিলেন বাইশারী কলেজের নতুন সভাপতি গোলাম ফারুক  বরগুনা/ ছেলে মারা যাওয়ার ৪ বছরেও শাশুড়িকে ঘরে উঠতে দিলেন না পুত্রবধূ  বিএনপির ১৫০০ নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তারের অভিযোগ